টাইমস হায়ার র‌্যাংকিংয়ে স্কোর ও অবস্থানে বাকৃবির উন্নতি

May 4, 2024 - 23:09
 0  224
টাইমস হায়ার র‌্যাংকিংয়ে স্কোর ও অবস্থানে বাকৃবির উন্নতি
ছবি- প্রতিনিধি/ওভি

ময়মনসিংহ, ০৩ মে (বাকৃবি প্রতিনিধি/আওয়ার ভয়েস) বিশ্বের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈশ্বিক, আঞ্চলিক ও বিষয়ভিত্তিক র‌্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গ্রহনযোগ্য হলো টাইমস হায়ার এডুকেশন র‌্যাংকিং (টিএইচই)। সম্প্রতি টাইমস হায়ার এডুকেশন এশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের (আঞ্চলিক) র‌্যাংকিং-২০২৪ প্রকাশ করেছে। সেখানে ৩১ দশমিক ৮ স্কোর নিয়ে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) অবস্থান ৩৫১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে।

গত বছর বাকৃবির অবস্থান ছিলো ৪০১ থেকে ৫০০ এর মধ্যে এবং স্কোর ছিল ২৪। অবস্থান ও স্কোর দুই ক্ষেত্রেই এগিয়েছে বাকৃবি। সর্বশেষ র‌্যাংকিং অনুযায়ী অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে বাকৃবির অবস্থান যৌথভাবে দ্বিতীয়। অন্যদিকে গত বছর সেরা ২০০ অবস্থানের মধ্যে থাকলেও এবছর পিছিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। সর্বশেষ র‌্যাংকিংয়ে ঢাবির অবস্থান ৪০১ থেকে ৫০০ এর মধ্যে।

টাইমস হায়ার এডুকেশনের প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ের বিষয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসকল কথা বলেন বাকৃবির ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের (আইকিউএসি) পরিচালক ও অতিরিক্ত পরিচালকবৃন্দ। শুক্রবার আইকিউএসির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক ড. সুকুমার সাহা, র‌্যাংকিং কমিটির বিশেষজ্ঞ সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর হোসেন, অতিরিক্ত পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. নাহিদ সাত্তার ও অধ্যাপক ড. জাহান আরা বেগম

সংবাদ সম্মেলনে অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর হোসেন বলেন, বাংলাদেশের নয়টি বিশ্ববিদ্যালয়সহ এশিয়ার ৩১টি দেশের মোট ৭৩৯টি বিশ্ববিদ্যালয় টাইমস হায়ার এডুকেশন আঞ্চলিক র‌্যাংকিং-২০২৪ এ স্থান পেয়েছে। এর মধ্যে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মাঝে বাকৃবির অবস্থান যৌথভাবে দ্বিতীয়। বাকৃবির সাথে ৩৫১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে অবস্থান করছে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় (এনএসইউ)। অন্যদিকে যৌথভাবে প্রথম অবস্থানে রয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গত বছর ১৮৬তম ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ১৯২তম অবস্থানে থাকলেও এবছর তাদের র‌্যাংকিং কিছুটা পিছিয়েছে। তবে বাকৃবি গত দুই বছর ধরেই অবস্থান ও স্কোরে উন্নতি করছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত আইকিউএসির অন্যান্য সদস্যরা বলেন, শিক্ষাদান, গবেষণার মান, গবেষণার পরিবেশ, ইন্ডাস্ট্রির সাথে সংযোগ এবং আন্তর্জাতিক দৃষ্টিভঙ্গি এর উপর মোট ১৮টি নির্দেশকে প্রাপ্ত স্কোরের ওপর ভিত্তি করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকা দেওয়া হয়েছে। এ তালিকায় স্থান পেতে হলে একটি বিশ্ববিদ্যালয়কে বিগত পাঁচ বছরে কমপক্ষে এক হাজার এবং প্রতি বছরে কমপক্ষে ১৫০টি স্কোপাস ইনডেক্স জার্নালে প্রবন্ধ প্রকাশ করতে হবে। পাশাপাশি টাইমস হায়ার এডুকেশন ডেটা পোর্টালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল তথ্যাদি প্রকাশ করা বাধ্যতামূলক। বাকৃবি ২০২২ সালে প্রথমবারের মতো টাইমস হায়ার এডুকেশন র‌্যাংকিংয়ে তালিকাভুক্ত হয়। ২০২২ থেকে ২০২৪ সময় পর্যন্ত প্রতি বছরই আঞ্চলিক পর্যায়ের র‌্যাংকিংয়ে স্কোরে এগিয়েছে বাকৃবি। 

এসময় আইকিউএসির পরিচাক অধ্যাপক ড. সুকুমার সাহা বলেন, এই অর্জন বিশ্ববিদ্যালয়ের সবার। বাকৃবির শিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নে যারা অর্থ, শ্রম ও বুদ্ধি দিয়ে সহযোগিতা করেছেন সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা। র‌্যাংকিংয়ে উন্নতির জন্য বিদেশি শিক্ষার্থী সংখ্যা বৃদ্ধি করা, শিল্প প্রতিষ্ঠানের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয় বৃদ্ধি করা জরুরি। এজন্য আইকিউএসি কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সকলের দক্ষতা বৃদ্ধি করতেও বিভিন্ন কর্মশালা ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

What's Your Reaction?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow

News Desk Chief Editor, Our Voice Online